হলি ফ্লাওয়ার হসপিটাল লাইসেন্স ছাড়া ১৪ বছর

হলি ফ্লাওয়ার হসপিটাল লাইসেন্স ছাড়া ১৪ বছর

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বাঙ্গড্ডা বাজারে ২০০৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় হলি ফ্লাওয়ার হসপিটাল। গত ২৪ বছর ধরে এই হসপিটালটি লাইসেন্স ছাড়া চলতেছে। প্রতিষ্ঠার পর একাধিক মালিক পরিবর্তন হয়েছে এই হাসপাতালের। কোন মালিকই গত ১৪ বছরে হাসপাতালে লাইসেন্স করেনি। সরজমিনে গিয়ে উক্ত হসপিটালের নিয়োগ দেওয়া কোন নার্স ও ডাক্তার পাওয়া যায়নি। ২২ ডিসেম্বর ২০২০ সালে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেছে কর্তৃপক্ষ। ওই আবেদনে ডাক্তার মেহেদী হাসান মজুমদার, ডাক্তার সুজন কুমার দে ও ডাক্তার মাইনুদ্দিন মাসুদ নামের তিনজন এম.বি.বি.এস ডাক্তারের নাম থাকলেও তাদের কাউকে পাওয়া যায়নি। রাবেয়া সুলতানা, রুবাইয়া আক্তার, আইনুন নাহার, নার্গিস আক্তার ও শাহেলা বেগম নামে ৬ জন ডিপ্লোমাধারী নার্স নিয়োগ দেওয়ার তথ্য থাকলেও কাউকে পাওয়া যায়নি। অতিথি ডাক্তার দিয়েই চলছে চিকিৎসাসেবা। এ ব্যাপারে হলি ফ্লাওয়ার হসপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এইচ এম ইয়াকুব মজুমদার বলেন ডাক্তার মেহেদি হাসান মজুমদার নামে একজন এমবিবিএস ডাক্তার ও ২ জন ডিপ্লোমাধারী নার্স তার হাসপাতালে কর্মরত আছে। তিনি আরো বলেন নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা প্রায়ই হলি ফ্লাওয়ার হসপিটালের বিভিন্ন অপারেশনে আসেন এবং এনেস্থিসিয়া দিয়ে থাকেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার দেবদাস দেব বলেন, নাঙ্গলকোট যেসব হসপিটালের লাইসেন্স নেই ওইসব হসপিটালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য ইউ এনও সাহেবের সাথে আলোচনা করে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে।

Please follow and like us:
0
20
Pin Share20

Leave a reply

Minimum length: 20 characters ::
RSS
Follow by Email
YOUTUBE
PINTEREST
LINKEDIN