জামালপুরে সাবেক যুবদল নেতা বিদ্যুৎ পেলো নৌকা প্রতীক এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

জামালপুরে সাবেক যুবদল নেতা বিদ্যুৎ পেলো নৌকা প্রতীক এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

তৌকির আহাম্মেদ হাসু জামালপুর প্রতিনিধিঃ জামালপুর সদর উপজেলার মেষ্টা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক যুবদল নেতা বদরুল হাসান বিদ্যুৎ।বিদ্যুৎকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন দেওয়ায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের শতাধিক নেতাকর্মী ও শত শত এলাকাবাসী।গতকাল শনিবার দুপুরে জামালপুর-সরিষাবাড়ী মহাসড়কের হাসিল টনকী চেয়ারম্যানের মোড় এলাকায় এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। বিক্ষোভ সমাবেশে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী এলাকাবাসী বক্তব্যে তারা জানান,গত ১১ অক্টোবর, ২০২১ তারিখে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড় কর্তৃক নৌকার মনোনয়ন প্রাপ্ত হন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সানোয়ার হোসেন সবুজ। যোগ্য প্রার্থীর মনোনয়ন এর খবরে ঐক্যবদ্ধ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল স্তরের তৃনমূলের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সাধারন জনগণের মধ্যে উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে, নৌকার প্রার্থীর পক্ষে সৃষ্টি হয় গণজোয়ার। কিন্তু একদিন পর প্রার্থীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক একটি মিথ্যা অভিযোগের ভিত্তিতে কেন্দ্র থেকে জেলা আওয়ামী লীগকে তার মনোনয়ন বাতিলের কথা জানানো হয় এবং ১৩ তারিখে হাইব্রীড় হিসেবে পরিচিত যুবদল থেকে যুবলীগে অনুপ্রবেশকারী বদরুল হাসান বিদ্যুৎকে মনোনয়ন দেয়া হয়। বিদ্যুৎ বা তার পরিবার কখনই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলো না। বিএনপি-জামাতের দুঃশাসনকালে কিংবা ওয়ান ইলেভেন এ আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে তার কোনো ভূমিকা তো ছিলোই না বরং বিদ্যুৎ ২০০৫ সালে মেস্টা ইউনিয়ন যুবদলের অন্যতম সদস্য ছিলো। সাম্প্রতিক সময়ে সদর উপজেলা যুবলীগে অনুপ্রবেশ করে নৌকার প্রার্থীতা ঘোষণা করলেও তার সকল কর্মকান্ড বিএনপির লোকদের নিয়েই করতো। একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কে বাদ দিয়ে অনুপ্রবেশকারীকে নৌকার মনোনয়ন দেওয়ায় আওয়ামী লীগ ও অন্য সহযোগী সংগঠনের সর্বস্তরের তৃনমূলের নেতাকর্মীরা ও এলাকাবাসী বিক্ষোভ সমাবেশ করে।সমাবেশে বক্তব্য দেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার সুজায়েত আলী ফকির, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ওয়ারেছ আলী ফকির, মনোজ্জল হোসেন, হারুন অর রশিদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা বাচ্চু মিয়া প্রমুখ। বিক্ষোভ সমাবেশে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার সুজায়েত আলী ফকির বলেন, দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন বোর্ড প্রথমে জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ছানোয়ার হোসেনকে মনোনীত করে চিঠি ইস্যু করলে এক শ্রেণির স্বার্থন্বেষী মহল ছানোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন একটি অভিযোগ দিয়ে তার মনোনয়ন বাতিল করান। পরে বদরুল হাসান বিদ্যুৎ নামে সাবেক যুবদল নেতাকে মেষ্টা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়। স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতারা বলেন, বদরুল হাসান বিদ্যুৎ ২০০৫ সালে মেষ্টা ইউনিয়নের যুবদলের কমিটিতে ছিলেন। এর আগে তিনি ওই ইউনিয়নেরছাত্রদলের কমিটিতে সদস্য পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। বদরুল হাসান বিদ্যুৎ পরবর্তীতে ২০১৯ সালে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক বনে গিয়ে দলীয় মনোনয়ন বাগিয়ে নেন। তাই তার মনোনয়ন বাতিল করে তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত আওয়ামীলীগ প্রার্থীকে পুনর্বিবেচনার মনোনয়ন দেওয়ার জন্য আমরা জোর দাবী জানাচ্ছি।

Please follow and like us:
0
20
Pin Share20

Leave a reply

Minimum length: 20 characters ::
RSS
Follow by Email
YOUTUBE
PINTEREST
LINKEDIN