জগন্নাথপুরে প্রবাসী ফখর উদ্দিনের নেতৃত্বে সরকারী রাস্তার মাটি কেটে জমিতে পরিনত- দুর্ভোগে গ্রামবাসী

জগন্নাথপুরে প্রবাসী ফখর উদ্দিনের নেতৃত্বে সরকারী রাস্তার মাটি কেটে জমিতে পরিনত- দুর্ভোগে গ্রামবাসী

মোঃ মুকিম উদ্দিন জগন্নাথপুর উপজেলা প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফখর উদ্দিনের নেতৃত্বে লাউতলা নুরবালা গাংপাড় গ্রাম বাসীর চলাচলের একমাত্র সরকারী রাস্তার মাটি কেটে সরকারসহ গ্রামবাসীর ক্ষয়ক্ষতি ও প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফখর উদ্দিনের বিরুদ্ধে এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।এদিকে গ্রামবাসী ঘটনার বিষয়ে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফখর উদ্দিনসহ ২৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগে জানাযায়, জগন্নাথপুর উপজেলার ২নং পাটলী ইউনিয়নের লাউতলা নুরবালা পশ্চিম গাংপাড় এলাকার লোকজনের চলাচলে একমাত্র রাস্তা। এই এলাকায় প্রায় দুই শতাধিক পরিবার, পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছেন। ঐ এলাকার লোকজনের চলাচলের জন্য বিগত ২০০৬ সালের প্রথমার্ধে রাস্তা নির্মানের জন্য সরকারী ভাবে মাটি ভরাট কাজ শুরু করা হয়। এরিই ধারাবাহিকতায় বিগত ২০১৮ অর্থ বছর ও ২০২১ অর্থবছরে সরকারী ভাবে রাস্তাটির মাটিভরাট রাস্তার কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর রাস্তাটি বর্তমানে এলজিইডি ইনভেন্টরিতে পাকা করনের পক্রিয়াধীন আছে।বিগত ১৫ জুন ২০২১ ইং তারিখে রাতের আধাঁরে একই গ্রামের খালিছ মিয়ার বাড়ির পাশের রাস্তাটি কে বা কাহারা কেটে ফেলে। পরে গ্রামবাসীর উদ্যোগে রাস্তাটি ভরাট করা হয়। এভাবে পর পর তিন বার রাতের আধাঁরে রাস্তার মাটি কেটে ফেলায় গ্রামবাসীর মনে সন্দেহ জাগে। অভিযোগে আরো বলা হয়, একইগ্রামের মৃত ছমরু মিয়ার ছেলে যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফখর উদ্দিনের নির্দেশে বিগত ২১ সেপ্টেম্বর সকাল ৮ ঘটিকার সময় একই গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে জুনেল মিয়া, দিলু মিয়া, পার্শ্ববর্তী ছাতক থানার কাংলাজান গ্রামের মৃত রইছ উল্লার ছেলে মধু মিয়া, শিব্বির আহমদ, তফজ্জুলসহ উশৃৃঙ্খল ৪০/৫০জনের একদলভুক্ত ভারাটে সন্ত্রাসী দিয়ে দেশীয় অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে প্রকাশ্যে রাস্তার মাটি কেটে জমিতে ফেলে দেয়।এঘটনা দেকে পার্শ্ববর্তী বাড়ীর খালিছ মিয়া, রফু মিয়া, শাহিনুর, আব্দাল মিয়া, কালাশাহ ও রফিনা বেগমসহ উপস্থিত অনেক লোকজন ঘটনার কারন জানতে চাইলে অন্যত্র থেকে আসা ভাড়াটি লোকজন তাদের হুমকি দিয়ে বলে যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফখর উদ্দিনের নির্দেশে আমরা কাজ করছি। যে কোন ভাবে হলেও আমরা রাস্তাকে জমিতে পরিনত করে দিব। এখবর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মূহুর্তে সারা গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে গ্রামের লোকজন ঘটনাস্থলে আসা দেখতে পাইয়া ভাড়াটে লোকজনসহ দুস্কৃতিকারীরা পালিয়ে যায়। রাস্তাটির মাটি কাটায় সরকারের প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে বলে লোকজন জানান। সরজমিন ঘুরে দেখা যায়, এই রাস্তা দিয়ে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানে পড়ুয়া ছাত্র ছাত্রীসহ শিক্ষক শিক্ষিকা মসজিদে নামাজ আদায়কারী মুসল্লীসহ এলাকার শত শত লোকজন এি রাস্তা দিয়ে চলাচল করেন। সম্প্রতি এই রাস্তাটি কেটে ফেলার কারনে স্কুল কলেজ মসজিদ মাদরাসায় পড়ুয়া শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত হয়েছেন। বিশেষ করে অসুস্থ রোগীরা উপজেলা সদর হাসপাতালে জরুরী চিকিৎসা সেবা পেতে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হবে। একই গ্রামের খালিছ মিয়া, রফু মিয়া, কালাশাহ সহ অনেকেই জানান, যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফখর উদ্দিন এলাকায় আধিপত্য বিস্তার কায়েম করতে আমাদেরকে হয়রানির উদ্দেশ্যে সরকারি রাস্তার মাটি কেটে আমাদের চলাচলে বিঘ্ন ঘটিয়েছে। রাস্তার মাটি কাটায় বাধাঁ দেওয়ায় এখন আমরা প্রবাসী ফখর উদ্দিনের লালিত ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের হুমকির মুখে আমাদের জান মালের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। উক্ত বিষয়টি সঠিকভাবে তদন্তপূর্বক দুষ্কৃতিকারীদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবী জানান।স্থানীয় ২ নং পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল হক বলেন, এই রাস্তাটিতে কয়েকবার সরকারী অনুদানে মাটি ভরাটের কাজ হয়েছে। যে বা যারা রাস্তার মাটি কেটে জনসাধারণের চলাচলে বিঘ্ন ঘটিয়েছে এটা খুবই অন্যায় কাজ। এই রাস্তাটি এলাকার লোকজনের চলাচলের একমাত্র রাস্তা এটি সত্য।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাজেদুল ইসলাম জানান, এলাকাবাসী একটি অভিযোগ দিয়েছেন। এলাকাবাসীর অভিযোগের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছি।

Please follow and like us:
0
20
Pin Share20

Leave a reply

Minimum length: 20 characters ::
RSS
Follow by Email
YOUTUBE
PINTEREST
LINKEDIN