বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন-পরিকল্পনামন্ত্রী মান্নান

বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন-পরিকল্পনামন্ত্রী মান্নান

মুহিবুর রেজা টুনু,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ¦ এম এ মান্নান বলেছেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই দেশটাকে স্বাধীন করে গেছেন আর তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্রামকে শহরে পরিণত করতে উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। তিনি শেখ হাসিনার একজন কর্মী হিসেবে সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যখন মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন,সেগুলোর মধ্যে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয় স্থাপন,বিঞ্জান ্র প্রযৃুক্তি বিশ^বিদ্যালয়,টেকস্ট্রাইল ইজ্ঞিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট এর কাজ চলছে,রেললাইন ও উড়াল সেতু প্রক্রিয়াধীন এবং চলমান আছে। এদিকে ঢাকার সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে তিনঘন্টা কমিয়ে আনতে জগন্নাথপুরের রানীগঞ্জে সেতুর কাজ অর্ধেকের চেয়েও বেশী হয়ে গেছে। দিরাইবাসীর জন্য শাল্লা হয়ে আজমিরীগঞ্জ হবিগঞ্জের সাথে সড়ক যোগাযোগ স্থাপনের কাজ সেগুলোও প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এই উন্নয়নের সময়টাতে আওয়ামীলীগ নামধারী গুটিকয়েকজন উন্নয়ন কাজে বাধার সৃষ্টি করছেন,বিভিন্ন জায়গাতে অপপ্রচার চালিয়ে দলকে দ্বিখন্ডিত করতে তৎপরতা অব্যাহত রাখছেন। তিনি আরো বলেন উন্নয়ন কাজের ধারা ব্যাহত করতে ঝগড়া বিবাধ ভাল নয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন,গতকাল ২রা অক্টোবর দিরাইয়ে শোকসভায় সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদককে ইঙ্গিত করে মন্ত্রী বলেছেন এই অল্পবসয়ী নেতা বাচ্ছা ছেলে এমন একটা হাস্যকর কথা বললেন আমি নাকি সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের বাসায় কুকুরের জন্য বিস্কুট নিয়ে গেছি । এই ধরনের মানুষদের মূল্যায়ন করার চেয়ে কুকুরকে বিস্কুট খাওয়ানো অনেক ভাল। এদের চেয়ে কুকুরের বিবেক বুৃদ্ধি বেশী আছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, এই জেলাবাসীর কল্যাণে কাজ করতে গেলে আগে ঘরের ভেতরে, দলের ভেতরে ঘাপটি মেরে থাকা সুবিধাবাদি,নেত্রীর মনোনীত প্রার্থীদের বিরোধীতাকারী মনোনয়ন বাণিজ্যকারী দালাল,টাউটদের দল থেকে সরানোর আহবান জানান। এই সমস্ত লুন্টনকারীরা টাকার পেছনে ঘুরে রাজনিিত করেন যারা বিলে,পাথরে ভাগ বসায় এদেরকে পরির্স্কা করতে হবে,ওদেরকে সরিয়ে সাধারন মানুষজনের যে কাজগুলো করা দরকার সেই কাজগুলো করতে হবে। তিনি বলেন এই সমস্থ সুবিধাবাদিরা দলের নাম ব্যবহার করে টাকা কামায়,দলের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করে তাদের খবর আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাল করেই জানেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই সমস্থ সুযোগ সন্ধানী,মৌসুমী পাখি,ব্যবসায়ী লুটেরাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাদের প্রতিহত করে সামনে দিয়ে এগিয়ে যেতে হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি এই উন্নয়নের ধারা সমুন্নত রাখতে সবাইকে সহযোগিতা করার আহবান জানান। তিনি স্বাধীন বাংলার প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরহুম আলহাজ¦ আব্দুস সামাদ আজাদ,প্রয়াত জাতীয় নেতা বিশিষ্ঠ পার্লামেন্টারিয়ান বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জানিয়ে বলেন তাদেরকে অনুসরন করে এ্ই জেলাকে বাংলাদেশের মধ্যে একটি আধুনিক ও উন্নত জেলায় রুপান্তরিত করতে সকলের সহযোগিতা চান মন্ত্রী। রবিবার বিকেলে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠন দিরাই উপজেলা শাখার আয়োজনে শহরের থানা পয়েন্টে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও করিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চারবারের চেয়ারম্যান মরহুম আছাব উদ্দিন সরদারের স্মরণে স্মরণকালের শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ¦ এম এ মান্নান এসব কথা বলেন।প্রধান বক্তার বক্তব্য সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুরুল হুদা মুকুট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কর্তৃক পরিকল্পনা মন্ত্রীকে নিয়ে এমন ঘৃন্য বক্তব্যের জবাবে বলেন আওয়ামীলীগের মধ্যে বিভেদ আর দ্বিখন্ডিত বিভক্তি করার পেছনে তাদের হাত রয়েছে। প্রয়াত জাতীয় নেতা মরহুম আব্দুস সামাদ আজাদের সময়কালে এই আওয়ামীলীগ সব সময়ই সুসংগঠিত ছিল কিন্তু প্রয়াত নেতা সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত আওয়ামীলীগে যোগদানের পরপরই সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগে বিভেদ আর বিভাজনের রাজনীতি শুরু হয়। গতকাল দিরাইয়ে প্রয়াত নেতা আছাব উদ্দিনের শোকসভায় যোগদান করে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক পরিকল্পনামন্ত্রীকে নিয়ে যে বাজে মন্থব্য করেছেন তার এমন মন্থব্যের জন্য জনগনের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানিয়ে আরো বলেন,তারাই বিভিন্ন সময়ে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে নেত্রী মনোনীত নৌকা প্রতিকের প্রার্থীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বিএনপি জামায়াতের প্রার্থীদের সাথে রাতের অন্ধকারে আতাত করে মনোনয়ন বানিজ্যর মাধ্যমে নৌকার প্রার্থীকে পরাজিত করার নীল নকসা করেছিলেন । আজ তাদের মুখে আর যাইহোক উন্নয়নের কথা মানায় না। পরিকল্পনামন্ত্রী একজন স্বজ্জন,সৎ,নিলোর্ভ উন্নয়নমুখী মানুষ উল্লেখ করে মুকুট আরো বলেন কাগজে কলমে দিরাই শাল্লার সংসদ সদস্য ড. জয়াসেন গুপ্তা থাকলেও মূলত এই দিরাই শাল্লার এমপি মুহিবুর রহমান মানিক বলে তিনি মন্থব্য করেন। কেননা এই রেললাইনটি যখন গবিন্দগঞ্জ,শান্তিগঞ্জ এবং দিরাই মদনপুর হয়ে সুনামগঞ্জে আসবে ঠিক তখনই জয়াসেন গুপ্তা দিরাই শাল্লাবাসীর স্বার্থ ও সংযোগকে বিবেচনায় না করে সিলেট থেকে সরাসরি ছাতকে রেললাইন স্থাপনের সুপারিশে ড. জয়াসেন সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের ডিও লেটারে কিভাবে স্বাক্ষর করলেন তা দিরাই শাল্লার মানুষজনের প্রতি বিবেচনা করার আহবান জানান। দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সমিরন সরকারের সভাপতিত্বে ও দিরাই উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রজ্ঞন রায় ও রুবেল সরদারের যৌথ সঞ্চালনায় শোকসভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক অতিরিক্ত সচিব মিজানুর রহমান,জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি রেজাউল করিম শামীম,সহসভাপতি এড. অবনী মোহন দাস,সহসভাপতি মো. আবুল কাশেম, জেলা আওয়ামীলীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,দিরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম চৌধুরী,দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও সাবেক পৌরসভার মেয়র মো. মোশারফ মিয়া,জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর চন্দ্র দাস,শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এড. আজাদুল ইসলাম রতন,শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সীতেশ তালুকদার মঞ্জু,বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী,তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর,পরিকল্পনামন্ত্রীর ব্যক্তিগত রাজনৈতিক সচিব মো. হাসনাত হোসাইন,শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক মো. নুর হোসেন,দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক সরদার,হাজী মজির উদ্দিন মিয়া,দিরাই উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোহন চৌধুরী,দিরাই যুবলীগ নেতা শাহ আলম সরদার,শান্তিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম,শিমুলবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান জিতু,জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম শিপন,আব্দুল গণি ভান্ডারী প্রমুখ।

Please follow and like us:
0
20
Pin Share20

Leave a reply

Minimum length: 20 characters ::
RSS
Follow by Email
YOUTUBE
PINTEREST
LINKEDIN