Search
Friday 5 June 2020
  • :
  • :

ত্রিশালে ভোটারদের কাছে ক্ষমা চাইলেন রুমা

ময়মনসিংহ (ত্রিশাল) সংবাদদাতা এস এম রুবেল আকন্দ:  প্রিয় ত্রিশাল বাসী আসসালামু-আলাইকুম,আমি জানি আমরা কেউ ভালো নেই, ভালো না থাকার কারণে হলো প্রাণঘাতী করোনা নামক আতঙ্কিত একটি ছোঁয়াছুঁয়ি ভাইরাস বিশ্বের সবাইকে আতঙ্কে রেখেছে। তাই সবার কাছে অনুরোধ থাকলো আপনারা নিজে সচেতন হন অপরকে সচেতন করুন। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন, বিনা কারণে বাহিরে যাবেন না। মহান আল্লাহ্‌র নিকট তওবা ও দোয়া করেন, আল্লাহতালা যেন আমাদের সহ সারাবিশ্বের মানবজাতি সবাইকে সুস্থ এবং সুন্দর রাখেন। ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদ খানম রুমা বলেন, আপনারা জানেন সরকার গরীব অসহায়দের মাঝে বিভিন্ন রকমের ত্রাণ দিচ্ছে। কিন্তু কষ্ট হচ্ছে এই জন্যই যে আমরা আপনাদের জন্য কোন কিছু করতে পারছি না। অথচ আপনারা আমাদেরকে ভোটে নির্বাচিত করে দুইজন ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে উপজেলা পরিষদে পাঠিয়েছেন। অত্যন্ত দুঃখের সাথে বলতে হচ্ছে যে তৃণমূল থেকে আরম্ভ করে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার, মহিলা মেম্বার, কাউন্সিলর, মহিলা কাউন্সিলর, মেয়র, উপজেলা চেয়ারম্যান, এমপি, এবং প্রশাসনিক নিবার্হী কর্মকর্তা, ত্রাণ ও দুর্যোগ কর্মকর্তা, সবাই জড়িত আছেন। কিন্তু অর্থাৎ আমরা ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দুইজন এসব কর্মকাণ্ড থেকে বঞ্চিত। তাহলে কেন এই দুইটি পদ দিলেন বা কেনই আমাদেরকে জনগণ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করলেন। অর্থাৎ আমরা তো জনগণের জন্য কিছুই করতে পারছি না। তাই আমাদের এই দুইটি পদ শূন্য করার উচিত আমার মনে হয়। তিনি বলেন কেন আমাদেরকে শুধু শুধু ভাতা দিচ্ছেন, আমরা যদি জনগণের জন্য কিছুই করতে নাই পারি। এই দুর্যোগ মুহূর্তে যদি জনগণের পাশে থাকতে নাই পারি সাহায্য সহযোগিতা না করতে পারি। তাহলে আমাদের এই পদে লাভ কী? সকল ভোটার ভাই বোনদের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি এইজন্যে, যে আপনাদের পাশে দুঃখিনী থাকতে পারছে না। অনেক ইউনিয়ন থেকে ফোন আসে যে আমি ত্রাণ পাচ্ছিনা আপা আপনি কিছু করেন আমাদের জন্য। তখন স্তব্ধ হয়ে যায়, মুখে বলার মত কোন ভাষা থাকেনা, খুব কষ্ট হয়। আমার সামর্থ্য অনুযায়ী ব্যক্তিগত থেকে কিছু দিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু সরকারি কোন অনুদান নয়। সাংবাদিক ভাইদের বলছি আমার এই ক্ষুদ্র লেখাটুকু দৃষ্টি আকর্ষণ করবেন।
বিঃদ্রঃ এই পোস্টটি সবাই শেয়ার করবেন যেন সফল রাষ্ট্রনায়ক মানবতার মা বিশ্বনেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরো সংবাদ




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close