Search
Friday 5 June 2020
  • :
  • :

করোনা ভাইরাসের সুযোগে কয়েক শ বছরের ‘দেওয়ান’ দিঘি ভরাট -প্রশাসন নিবির্কার

এম,ইব্রাহিম খলিল প্রতিনিধি সীতাকুন্ড চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে করোনা ভাইরাসের সুযোগ কে কাজে লাগিয়ে কয়েকশ বছরের দেওয়ান দিঘি জলাশয় ভরাটের মহা উৎসব চলছে প্রশাসন নিবির্কার। বিভিন্ন পরিচয়ের প্রভাবখাটিয়ে নিয়মিত দিঘি পুকুর ভরাট করছে প্রভাবশালীরা। সম্প্রতি তালিকায় যুক্ত হয়েছে পৌরসদরের পূর্ব আমিরাবাদস্থ কয়েকশ বছরের পুরনো ‘দেওয়ান দিঘি“। জলাশয় ভরাট করা অব্যাহত রেখেছে এ নিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।.প্রায় ৫ একর আয়তনের বিশাল দেওয়ান দিঘিটি সুপ্রাচীনকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম পুরাতন ট্রাঙ্ক রোড এর পশ্চিম পাশে বিশাল দিঘি বর্তমানে ঐ দিঘিটিকে দুই ভাগ করে মাঝ দিয়ে বাইপাস সড়ক তৈরী করে বাজারের যানঝট মুক্ত করেছে। বর্তমানে দিঘির মাঝে পূর্ব অংশে জলাশয় ভরাট করেছে দিঘির মাটি দিয়ে ভিটি তৈরী করেছে ।.স্থানীয় মাষ্টার দা রতন মিত্র জানান বংশ পরম্পরায় বিগত ৫-৬ পুরুষ ধরে এই এলাকার পানির প্রধান ও একমাত্র উৎস দিঘিটি। এলাকার পানীয় জলসহ গৃহস্থালীর পানির বড় উৎস হিসেবে হাজারো মানুষের নিত্য প্রয়োজন মিটিয়ে আসছিল। এই দিঘির মালিকানা স্রাইন এষ্ট্রেটের হওয়ার কারণে কোন বাধাঁ ছাড়া দিঘির পানি নষ্ট করার জন্য বাজারের ড্রেইন এর লাইন দেওয়া হয়েছে বতর্মানে ব্যবহার অনপযোগি।বর্তমানে দীঘিটির উত্তর, পাড়ে ভবন নির্মাণ চলছে পুরোদমে,পূর্ব পাড়ে দোকান, পশ্চিম ও দক্ষিণ পাড়ে বাসাবাড়ি ।.জলাশয়, পুকুর বা দীঘি ভরাটে পরিবেশ অধিদপ্তরের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও মানছে না কেউ। জেলা ও পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা নাজিম শেখ জানান করোনা ভাইরাসের সুযোগ কেকাজে লাগিয়ে জলাস্বয় ভারট ও দখল করেছে।পুকুর ভরাট জলাশয় বন্ধ বা শ্রেণি পরিবর্তনে নিষেধাজ্ঞা থাকা শর্তেও থেমে নেই জলাশয়ে নির্মাণ কাজ।তিনি এই প্রতিবেদকে বলেন, বৃহৎ দিঘি ভরাটের বিষয়ে জানতে চাইলে পরিবেশ অধিদপ্তরের নিউজ করে আপনারা আমাদের উপ পরিচালকের বরাবর পাঠিয়ে দিবেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে । এব্যপারে সীতাকুন্ড স্রাইন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বলেন স্রাইনের জায়গা এক সনা লিজ দিতে পারে র্দীঘ মেয়াদী লিজ দেওয়া আইন বর্হিভুত,দিঘির ব্যপারে বার্ষিক ইজারাদার ম্যানেজারের অনুমতিতে দিঘির পাড়বাঁধার কাজ করেছে।জলাশয় ভরাট করে ভিটি বাধঁল কে তা আমার জানা নাই। .দিঘির চারপাশ অবৈধ দখলদার পানি ও জলসয় দখলে থাকা ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের ব্যপারে অজ্ঞাত কারণে নিরব রয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর ও স্বানীয় প্রশাসন স্রাইন এষ্ট্রেট।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরো সংবাদ




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close